ড্রিংকিং ওয়াটার ব্যবসার লাইসেন্স প্রক্রিয়া!

সার্টিফিকেশন মার্কস (সিএম) লাইসেন্স প্রদান, নবায়ন এবং আমাদনিকৃত পণ্যের অনুকূলে বিএসটিআই ছাড়পত্র প্রদানের ধাপসমূহ:বাধ্যতামূলক পণ্য অথবা স্বেচ্ছাপ্রণোদিত পণ্য উভয় ক্ষেত্রে একজন উৎপাদনকারী, মোড়কজাতকারী অথবা আমদানিকারক বাজারজাত করার উদ্দেশ্যে তাদের পণ্যের অনুকূলে বিএসটিআই সার্টিফিকেশন মার্কস (সিএম) লাইসেন্স গ্রহণের জন্য নির্ধারিত দরখাস্ত ফরম যথাযাথভাবে পূরণ পূর্বক বিএসটিআই প্রধান কার্যালয়ের এবং আঞ্চলিক অফিসের ‘‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টার’’ এ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং দরখাস্ত ফি সহ জমা প্রদান করতে হবে।

ক) হাল নাগাদ ট্রেড লাইসেন্স সত্যায়িত ফটোকপি ।
খ) ট্রেড মার্ক লাইসেন্স এর সত্যায়িত ফটোকপি ।
গ) ভ্যাট (vat)সত্যায়িত ফটোকপি।
ঘ) টিন(TIN) সনদের সত্যায়িত ফটোকপি।
ঙ) পণ্য ব্যবহিত মোড়কে/ লেবেল এবং জারের ক্ষেত্রে (স্কিন প্রিন্ট করে) নিন্মেবনিত তথ্যাদি বাংলায় উল্লেখ করতে হবে-

(১) প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানা

(২) পণ্যের নাম ও ব্র্যান্ড

(৩) ওজন ও পরিমান

(৪) ব্যাচ নাম্বার

(৫) সংশ্লিষ্ট বিডিএস অনুযায়ী মিনারেল কম্পোজিশন

(৬) উৎপাদনের তারিখ

(৭) মেয়াদ উত্তীণের তারিখ

(৮) সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য

(৯) সংশ্লিষ্ট বি ডি এস নাম্বার।

চ) microbiology/chemist – এবং অনান্য লোকবলের তালিকা ও ছবিসহ বায়োডাটা।
ছ ) উৎপাদনের প্রবাহ চিত্র (Flow diagrage) ও উৎপাদনের যন্ত্রপাতির তালিকা ।
জ) ল্যাবরেটরির যন্ত্রপাতির তালিকা
ঝ) ল্যাবরেটরিতে পরিক্ষার জন্য রাসায়নিক পদাথের (Chemical Reagent) তালিকা
(ঞ) সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রিমিসেস লাইসেন্স।
(ট) ওজন মাপের ক্যালিব্রেশন লাইসেন্স (BSTI থেকে নিতে হয়।=১৮,৫০০/= গভঃ ফি )

২। প্রতিটি পণ্যের জন্য দরখাস্ত ফি বাবদ টাঃ ৫০/=নতুন এবং ২৫/= নবায়ন জমা দিতে হবে।

৩। প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র সহ দরখাস্ত প্রাপ্তির পর BSTI কতৃক কারখানা পরিদর্শন ফি ১০০০/= এবং ফিল্ড অফিসার পরিদর্শন এর প্রতিবেদন উদ্ধতন এর কাছে প্রনয়ন করবে এবং আপনার কারখানার যেসব সমস্যা থাকবে তা লিখিত ভাবে জানাবে আপনি এক মাসের মধ্যে সমস্যা সামাধান করে প্রতিবেদন জমা দিলে আপনার পানির নমুনা সীল করবে ।

৪। সীলকৃত নমুনা নিধারিত পরিক্ষন ফ্রি সহ পরিক্ষাগারে (BSTI ঢাকা) জমাদান করতে হবে (গভঃ ফি ১৭,৫০০/=)| (বিঃ দ্রঃ ৩ নং ও ৪ নং এর ক্ষেত্রে BSTI অফিসার কে নিজ খরচ এ কারখানায় নিতে হয়, এটা অফিস অনুমদিত)

৫। মার্কিং ও লাইসেন্স ফি।

(ক) মার্কিং ফিস বাৎসরিক উৎপাদন মূলের উপর টাঃ ০.১০% হারে ধার্যকরন তবে বাৎসরিক ১০,০০০০/=(১০,০০০*৩=৩০,০০০০/=)
(খ) লাইসেন্স প্রাপ্তির ফি ২০০/= বাৎসরিক ।

৬। বি ডি আস-১৪২০ অনুযায়ী নমুনা পরীক্ষায়

৭। বিডিএস ১৪২০ অনুযায়ী পানির নমুনা পরীক্ষায় অকৃতকায হইলে লাইসেন্স প্রদান প্রত্যাখান করবে।

৮। লাইসেন্স প্রাপ্তির পূর্বে পন্য বাজারজাতকরন নিষিদ্ধ ও আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

৯। প্রতি ৩ বৎসরান্তে লাইসেন্স নবায়ান করতে হবে ।

১০। কারখানার ফ্লোর টাইলস হতে হবে।

১১। উপরে ছাদ না থাকলে টিন হলে ফলস্লিং হতে হবে।

১২। ছোট বোতল এর ক্ষেত্রে ম্যানুয়াল ফিল্লিং করা যাবে না । জার এর ক্ষেত্রে autofilling হলে ভাল হয় ।

১৩। filling রুম ও মাইক্রোবায়োলজিক্যাল ল্যাব A/c হতে হবে।

১৪। পানি পিওর করার জন্য Raw water এর উপর নিরবর করবে কি কি ফিল্টার ও ক্যামিকাল লাগবে।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব