চাকুরী ছেড়ে চা বিক্রি করে কোটিপতি নারী!

ব্যবসা করবেন বলে স্থায়ী চাকরি ছেড়ে দিয়েছিলেন । চাকরি ছেড়ে এতোটা সফল হবেন তা নিজেও বুঝতে পারেননি। সাধারণ এই গল্পটা অনেকেরই হতে পারে। তবে একজন মার্কিন মহিলা চা বিক্রি করে কোটিপতি হয়ে যাবেন, এই গল্পটা সত্যিই অবাক করে। এমনই ঘটনা ঘটেছে কলোরাডোর ব্রুক এডির জীবনে ।

ব্রুক ২০০২ সালে ভারতে এসেছিলেন ঘুরতে। চাও খেয়েছিলেন। কিন্তু সে তো কত পর্যটকই খান। তবে এই ভারতীয় চা রীতিমতো পছন্দ হয়ে গিয়েছিল ব্রুকের। ভেবেছিলেন নিজের দেশেও এ রকম চা পাবে।

তবে চার বছর পর দেশে ফিরে হতাশ হতে হয়েছিল ব্রুককে। কোথাও ভারতীয় চায়ের মতো স্বাদ পাননি তিনি। তাই উদ্যোগটা নিয়েছিলেন। খুলেছিলেন নিজের ভারতীয় চায়ের স্টল। নাম ভক্তি চা। একজন মার্কিনি হয়ে ভারতীয় চায়ের স্টল খুলে ২০০৭ সাল থেকে যে ব্যবসা শুরু করেন তিনি, ২০১৮ সালে তার টার্ন ওভার দাঁড়িয়েছে সাত মিলিয়ন ডলার।

আমেরিকার একটি ম্যাগাজিনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ব্রুকের বিশেষত্ব চায়ের ইনফিউশন। ভারতীয় চা কে মার্কিনি মোড়কে পেশ করেন ব্রুক। সেখানেই ম্যাজিক। ২০০৭ সালে যাত্রা শুরু করে কিছু সময়ের মধ্যেই বিস্তর জনপ্রিয়তা লাভ করেন তিনি।

এখানেই শেষ নয়। ভক্তি চা নিজের একটা ওয়েবসাইট খুলেছে ২০১৭ সালে। ঘরোয়াভাবে যে যাত্রা শুরু হয়েছিল, আজ তা রমরমায় খুশি ব্রুক। এর মধ্যে বেশ কয়েকবার ভারত ঘুরে গিয়েছেন ব্রুক। এখানে রঙিন জীবন, খাওয়া-দাওয়ার বৈচিত্র্য তাকে বারবার ভারতে টেনে আনে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সিঙ্গল মাদার হিসেবে দুই সন্তানের জননী ব্রুক ইতিমধ্যেই উঠতি ব্যবসায়ীদের মধ্যে প্রথম পাঁচে নিজের জায়গা পাকা করে নিয়েছেন। সফল ব্যবসায়ী হিসেবে খেতাবও পেয়েছেন তিনি।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব