ক্যারিয়ার ধ্বংস করছে যেসব ভুল

জীবিকা নির্বাহে প্রত্যেকটা মানুষকে কর্মক্ষেত্রে যোগ দিতে হয়। কেউ জীবন চালানোর ব্যয় মেটানোর জন্য ব্যবসাকে বেছে নেয়। অন্যরা বেছে নেয় চাকরির পেশা। চাকরি পেতে কিছু ধাপ পার হতে হয়। আর এই ধাপ অতিক্রম করতে না পারলে ক্যারিয়ার ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছায়।

চাকরির আবেদন করতে গিয়ে অনেকেই ছোট ছোট কিছু ভুল করে ফেলে। যেগুলো প্রাথমিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ মনে না হলেও, চাকরিটি পাওয়ার পথে বড় ধরনের বাধা হয়ে দাঁড়ায়। এমন কিছু ভুল উল্লেখ্য করা হলো:

সিভি বড় করার উদ্দেশ্যে, অনেকে অবান্তর তথ্য জুড়ে দিয়ে থাকেন। তাতে যে হীতে বিপরীত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। অহেতুক তথ্য সমাহার আপনার চাকরিদাতাকে বিরক্ত এবং আপনার সম্পর্কে তার মনে নেতিবাচক ধারণা তৈরি করতে পারে। তাই সিভি তথ্যনির্ভর হোক, ঠিক আছে কিন্তু তাই বলে অবান্তর তথ্য জুড়ে দেওয়ার কোনো দরকার নেই।

চাকরি পাওয়ার জন্য দরকার যোগাযোগ ক্ষমতা। কোন দপ্তরে বা কোন প্রতিষ্ঠানে চাকরির বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে, কিভাবে আবেদন করতে হবে কিংবা কি ধরণের প্রশ্ন হতে পারে, সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে অন্য আবেদনকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা খুবই প্রয়োজন। সাময়িকভাবে অনেকেই এটাকে গুরুত্ব দেয় না। কিন্তু পরে যোগাযোগ দক্ষতার অভাববোধ করে।

অনেকে লক্ষ্য ঠিক করে রাখেন যে, অমুক চাকরি করবো আর তমুক চাকরি করবো না। এজন্য সে যেকোন একদিকে মনোযোগী হয়। ফলে অনেক সময় দেখা যায়, তার লক্ষ্য পূরণ হচ্ছে না এবং অন্য চাকরিতে আবেদন না করার কারণে সেই সুযোগও হারাচ্ছে। তাই যেকোনো একদিকে না দৌঁড়ে সব চাকরিতে আবেদন করে রাখলে আপনার জীবন সুখের হবে।

ইংরেজি খুব বেশি পারি না, তাই বেসরকারিখাতে ভালো চাকরির আবেদন করে লাভ কি? এমন সংশয়ে থাকেন অনেক চাকরীপদ প্রার্থীরা। এজন্য সেই সেক্টরে আবেদন করেন না। এমনকি ইংরেজি পারেন না বলে তা শিখতেও চেষ্টা করেন না। লজ্জায় ভোগেন ইংরেজি শিখতে পারবো কিনা।

এমন সব ভুল ধারণা থেকে তাদের আর ইংরেজি শেখা হয়না আবার মন ভেঙ্গে যাবার কারণে চাকরিও হয়না। এজন্য মনে সংশয় না রেখে এখনই আপনার ভুল ধারণা পাল্টে ফেলুন আর আবেদন করুন সরকারি, বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানে দেখবেন চাকরি কোথাও না কোথাও হয়ে যাবে।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব