কম পুঁজিতে লাভজনক গার্মেন্টস ষ্টকলট ব্যবসা!

আমাদের দেশের গর্মেন্টস শিল্প রপ্তানী নির্ভর। আর এ খাতে কাজ করছে লাখ লাখ শ্রমিক। প্রতিনিয়তই দেশের অর্থনীতিকে তারা করছেন সমৃদ্ধ।রপ্তানী নির্ভর এ গার্মেন্টস শিল্পে বিভিন্ন সময়ে কিছু কিছু কারনে অনেক ফ্যাক্টরীতে শিপমেন্ট বাতিল হয়ে যায়। আর বাতিল হয়ে যাওয়া শিপমেন্টের সকল পন্যই হয়ে যায় স্টক। যে সকল কারনে গার্মেন্টস এ ষ্টক লটের সৃষ্টি হয় তার মধ্যে অন্যতম হল শিপমেন্ট ক্যানসেল, শিপমেন্ট ডিলে কন্টিনিয়াস রিচেক, এলসি সমস্যা ইত্যাদি।

কিছু কিছু সময় বায়ার বিভিন্ন অজুহাতে ইচ্ছাকৃত ভাবে শিপমেন্ট ক্যানসেল করে, যাতে করে সে নির্ধারিত মূল্যের চেয়েও কম মূল্যে পন্যটি ক্রয় করতে পারে। মূলত কোন পন্য ষ্টক হয়ে গেলে নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে দাম কমে যায়। আর এ সুবিধা ভোগ করে বিভিন্ন মহল। বর্তমানে বিদেশী বায়াররা ষ্টক লটের প্রতি খুব বেশি ঝুঁকে পরেছে। তার কারন কম মূল্যে গার্মেন্টস ষ্টক ক্রয় করতে পারে তারা।

ষ্টক লট বিভিন্ন সংখ্যার হতে পারে। হতে পারে শর্ট কোয়ান্টিটি ষ্টক লট অথবা লং কোয়ান্টিটি ষ্টক লট। সংখ্যার অনুপাতে এটা নির্ধারিত হয়ে থাকে।তবে যাই হোক না কেন, এই খাতে বিনিয়োগ খুবই লাভজনক এবং কম ঝুকিপূর্ণ। প্রথমত এই পন্য পঁচে না, যত্ন নিলে নষ্টও হয় না। উপরন্তু এর চাহিদাও অত্যাধিক।আপনি নতুন হয়ে থাকলে প্রথমে ক্ষুদ্র বিনিয়োগ দিয়ে আরম্ভ করতে পারেন এ ব্যবসা। এক থেকে লক্ষ টাকা থেকে পাঁচ লক্ষ টাকার মধ্যে। আপনি শর্ট কোয়ান্টিটির ষ্টক ক্রয় করতে পারেন।

আবার আপনি শর্ট কোয়ান্টিটির ষ্টক ক্রয় করতে পারেন লং কোয়ান্টিটি পন্যেও। পন্যেরও কিছু অংশ ক্রয় করে, যদি সেই লট পার্শাল কোয়ান্টিটি সেল সাপোর্ট করে।তবে আপনাকে একটু বুদ্ধি খাটিয়ে ব্যান্ডের ষ্টক লট কিনতে হবে। তাহলে বিক্রয়ের ক্ষেত্রে একটু বাড়তি সুবিধা আদায় করে নিতে পারেবেন। আর ব্যান্ডের পন্যটি ক্রয় করতে বায়ারও আগ্রহ বেশী পায় ।ষ্টক লটের পন্য ক্রয় করতে সর্তকতার সাথে যোগাযোগ করতে হবে গার্মেন্টস গুলোর সাথে। তাদের সাথে সু সম্পর্ক বজায় রেখে আপনাকে সংগ্রহ করতে কখন তাদের পন্য ষ্টক হয়।

পন্য ক্রয়ের ক্ষেত্রে অবশ্যই জেনে নিবেন পন্য কোন দেশের জন্য তৈরী করা হয়েছিল। কারন আপনার বাজারের সাথে সামজস্য রেখে আপনাকে পন্যটি বিক্রয় করতে হবে। ষ্টকের পন্য ক্রয় করার পর আপনি বিক্রয় করতে পারবেন দেশ এবং বিদেশের বাজারে। কারন এ পন্যের বাজার চাহিদা একটু বেশীই। আর এ ব্যবসায় একটু সর্তকতার সাথে করতে পারলে আপনি খুব সহজেই হতে পারবেন সফল।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব