অল্প পুঁজিতে কার ওয়াশ ব্যবসা!

সামগ্রিক বিনিয়োগ বিবেচনায় গাড়ী ধোয়ার ব্যবসাটি একটি জনপ্রিয় ব্যবসা। জনসংখ্যা বৃদ্ধি ও নগরায়নের ফলে সমগ্র বিশ্বে গাড়ীর সংখ্যা বাড়ছে। গাড়ীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় দিন দিন এই ব্যবসা শুরু করার সুযোগ তৈরী হচ্ছে। যানবাহন সংশ্লিষ্ট এই ব্যবসাটি বর্তমানে একটি ক্রমবর্ধমান ব্যবসা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এটি একটি ঝুঁকি মুক্ত ব্যবসার ধারণা। ছোট মূলধন বিনিয়োগ করেই এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়।

ব্যবসার ধরণ: এটি একটি সেবামূলক ও লাভজনক ব্যবসা হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। ব্যবসার অবস্থান: গাড়ী ধোয়ার ব্যবসাটি শুরু করতে হলে যোগাযোগ ব্যবস্থা ভাল এমন জায়গায় একটি খোলা মাঠের প্রয়োজন এবং পর্যাপ্ত পানির ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে। সম্ভাব্য পুঁজি: এই ব্যবসা শুরু করতে আনুমানিক ১০০০০০ থেকে ২০০০০০ টাকা মূলধন বিনিয়োগ করা প্রয়োজন হতে পারে।

গাড়ী ধোয়ার ব্যবসার বাজার পরিস্থিতি: সারা বিশ্বে এই ব্যবসার একটি বিশাল বাজার রয়েছে। তাছাড়া যেহেতু দিন দিন গাড়ীর সংখ্যা বাড়ছে তাই স্বাভাবিক ভাবেই এই ব্যবসার বাজারও প্রসারিত হচ্ছে।

কিভাবে এই ব্যবসা শুরু করবেন: পর্যাপ্ত পানির সরবরাহ নিশ্চিত করা যায় এমন স্থানে গাড়ী ধোয়ার কাজ করে এই ব্যবসাটি পরিচালনা করা হয়। ব্রাশ ও শ্যাম্পুর সাহায্যে গাড়ী ধুয়ে পরিষ্কার করতে হয়। আপনি চাইলে গাড়ী ধোয়ায় দক্ষ কর্মী নিয়োগ করেও এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

গাড়ী ধোয়ার ব্যবসাটি কেন শুরু করবেন: অন্যান্য ব্যবসার চেয়ে এই ব্যবসায় ঝামেলা ও ঝুঁকি কম থাকায় অনেক উদ্যোক্তাই এই ব্যবসার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করছেন। তাছাড়া এই ব্যবসার মাধ্যমে সহজেই আর্থিক ভাবে লাভবান হওয়া যায়। গ্রাহক: ব্যস্ততার জন্য যারা গাড়ী পরিষ্কার করতে পারেন না তারা গাড়ী পরিষ্কার করার জন্য গাড়ী ধোয়ার প্রতিষ্ঠান গুলোতে এসে থাকেন। বিশেষ করে প্রাইভেট গাড়ীর মালিক গণ এই ব্যবসার প্রধান গ্রাহক।

যোগ্যতা: এই ব্যবসাটি শুরু করার জন্য বিশেষ কোন দক্ষতার প্রয়োজন পড়ে না। চাইলে যে কেউ কোন গাড়ী ধোয়ার প্রতিষ্ঠান থেকে ২/৩ দিনের প্রশিক্ষণ নিয়ে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। সাবধানতা: গাড়ী ধোয়ার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যেনো কোন ভাবেই গাড়ীতে কোন প্রকার দাগ না লাগে। সাবধানতার সাথে গাড়ীর সামনের কাচ ও লুকিং গ্লাস ধৌত করতে হবে। সম্ভাব্য আয়: গাড়ী ধোয়ার ব্যবসাটি শুরু করে মাসিক ২৫০০০ থেকে ৪০০০০ টাকা আয় করা সম্ভব।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব