অফিসে বসের বিশ্বস্ততা অর্জনের কিছু কৌশল!

অফিসে কাজের ক্ষেত্রে এবং আপনার মান আরও উন্নত করতে বসের বিশ্বস্ততা আপনার একান্ত প্রয়োজন। যদি বসের কাছে বিশ্বস্ততার পাত্র হয়ে উঠতে না পারেন কিংবা সুসম্পর্ক তৈরি না হয় তাহলে চাকরি করাটাই কঠিন হয়ে পড়বে। সুতরাং বসের বিশ্বস্ততা অর্জনের জন্য কিছু কৌশল অবলম্বন করাই শ্রেয়।

ভুলটাকে না লুকিয়ে শিক্ষা নিন
যদি বসের কাছে কোন ভুল করে থাকেন তবে তা লুকানোর পরিবর্তে তা থেকে শিক্ষা নিন। অনেক কর্মী ভুল করলে বসের কাছে তা স্বীকার করতে চান না বা করেন না। সুতরাং আপনার বসকে দেখিয়ে দিন যে, আপনি আপনার ভুল স্বীকার করতে পিছুপা হন না এবং তাকে এটাও বোঝান যে ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে আপনি সমাধানের পথ বের করছেন।

সময় মতো অফিসে উপস্থিত থাকুন
প্রতিদিন সময় মতো কাজে উপস্থিত থাকুন। বসের বিশ্বাস যোগাতে অবশ্যই আপনাকে ঠিক সময়ে অফিসের কাজে উপস্থিত থাকতে হবে। কেনন বস সময়ের মূল্যকে বেশি প্রাধান্য দেন। তাই সময় মতো কাজে আসে এমন কর্মচারীকে তারা বেশি বিশ্বাসযোগ্য মনে করেন।

কাজের দায়িত্ব নিজে বুঝে নিন
যখন কোনও কাজের দায়িত্ব নেওয়ার ব্যাপার আসে, তখন অন্যদের জন্য অপেক্ষা না করে নিজেই নিয়ে নিন কাজের ভার। কে করবে এই আশায় বসে থাকা কর্মচারীদের উপর বসের বিশ্বাস খুব কমই থাকে। আপনি যদি বসের বিশ্বস্তকর্মী হতে চান নিজে থেকেই কাজের দায়িত্ব নিয়ে নিন।

বসের সঙ্গে ভদ্র আচরণ
বসের সঙ্গে সবসময় ভদ্র আচরণ করার চেষ্টা করুন। কারণ অভদ্র কিংবা অবাধ্য কর্মীর উপর বস বিশ্বাস হারিয়ে ফেলেন। বস কোনও কাজের আদেশ দিলে সেটা যত সম্ভব করার চেষ্টা করুন। আপনার যদি কোনও অসুবিধে থাকে, সেটা সুন্দর করে বুঝিয়ে বলুন। উচ্চস্বরে কিংবা অভদ্রভাবে কিছু বলা থেকে বিরত থাকুন।

বসের প্রতি অনুগত থাকা
সব সময় সৎ ও নিবেদিতপ্রাণ কর্মী হয়ে থাকুন। বস সম্পর্কে সহকর্মীদের কাছে কিছু বলবেন না। যদি কোনো সমস্যা থাকে সরাসরি বসের সঙ্গে বলে ফয়সালার চেষ্টা করুন। কিন্তু আড়ালে কিছু বলতে যাবেন না। একবার বসের সঙ্গে বিশ্বাস ভঙ্গ হলে অপূরণীয় ক্ষতি হয়ে যাবে।

অফিস পলিটিক্স থেকে বিরত থাকুন
অফিস পলিটিক্স কাজের পরিবেশ নষ্ট করে দেয়। তাই চেষ্টা করুন অফিস পলিটিক্সকে এড়িয়ে চলতে। অফিস পলিটিক্সে একবার নিজেকে জড়িয়ে ফেললে এর থেকে সহজে বের হতে পারবেন না। তখন আপনার কর্মক্ষেত্রে নানারকম অসুবিধা হবে এবং তার সঙ্গে বসের কাছে বিশ্বাসযোগ্যতা হারিয়ে ফেলবেন।

শেয়ার করুন:

Facebook
Twitter
Pinterest
LinkedIn

সম্পর্কিত পোস্ট

দেড়শ নারীকে স্বাবলম্বী করছেন ফেরদৌসি পারভীন!

পার্বত্য চট্টগ্রামের পাহাড়ি নারীদের একটা অংশ উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত। কিন্তু পুঁজির অভাবে অনেকেই উদ্যোক্তা হয়ে উঠতে পারছে না। থামি. পিননসহ বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী পোশাক প্রস্তুত করতে

উদ্যোক্তাদের জন্য মানসিক চাপ কমানোর কিছু পন্থা

আমরা আজকে উদ্যোক্তাদের জন্য আলোচনা করবো মানসিক চাপ কমানোর পন্থা নিয়ে কারন উদ্যোক্তারা অনেকেই মানসিক চাপ নিয়ে তার উদ্যোগ কে সফলার দিকে নিয়ে যেতে পারে

বাড়ির ছাদে ছাগল পালন করে স্বাবলম্বী রায়হান!

‘পরিবারে কোনো আর্থিক অনটন ছিল না। পড়েছি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে। তাই আমার মতো ছেলে কেন ছাগল পালন করবে, এটাই ছিল মানুষের আপত্তির কারণ। কিন্তু মানুষের সেসব